০৪/০৪/২০২০ ১১:১৭:১২

matrivhumiralo.com পড়ুন ও বিজ্ঞাপন দিন

প্রতি মুহূর্তের খবর

o করোনা মোকাবিলায় মেডিক্যাল টিমসহ ১০০ সেনাসদস্য o করোনাভাইরাস প্রতিরোধে কার্যক্রম শুরু করেছে সেনাবাহিনী o করোনাভাইরাস প্রতিরোধে সেনাবাহিনীর মতবিনিময় o করোনা ভাইরাস প্রতিরোধে সুন্নতে খাৎনার অনুষ্ঠান বন্ধ o আগামী সপ্তাহ করোনা পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণের গুরুত্বপূর্ণ
আপনি আছেন : প্রচ্ছদ  >  সারা দেশ  >  প্রতিবন্ধী হওয়া আব্বাস আলীর সংগ্রামী জীবন

প্রতিবন্ধী হওয়া আব্বাস আলীর সংগ্রামী জীবন

পাবলিশড : ১৮/০২/২০২০ ১৯:৫০:৫৯ পিএম আপডেট : ১৮/০২/২০২০ ১৯:৫৫:৪৭ পিএম
প্রতিবন্ধী হওয়া আব্বাস আলীর সংগ্রামী জীবন

রাঙ্গুনিয়া প্রতিনিধিঃ ::

জম্মের ৫বছর বয়সে প্রতিবন্ধী হওয়া আব্বাস আলীর সংগ্রামী জীবন শুরু হয় ছোট বেলা থেকেই। যখন তার বয়স ১১ তার বাবা কাঠ সংগ্রহ করতে যায় পাহাড়ে আর সেখানেই সন্ত্রাসীদের হাতে নির্মম ভাবে খুন হন তিনি। পরবর্তীতে হন্য হন্য হয়ে খুঁজে লাশ ও পাওয়া যায়নি তার। সে থেকেই জীবনের তাগিদে পরিবারের হাল ধরার ভার পড়ে প্রতিবন্ধী আব্বাস আলীর উপর৷ পা দুটি বিকলাঙ্গ হওয়ার কারণে কাজ তো দূরের কথা স্বাভাবিক চলাফেরা ও করতে পারেনা সে৷ তবে মানুষের দুয়ারে দুয়ারে ঘুরে কখনও ভিক্ষা বৃত্তি করেনি। বরং মানুষের বাড়ি বাড়ি গিয়ে ইট ভাঙ্গার কাজ করেছেন দীর্ঘ ১০বছর। শারীরিক প্রতিবন্ধী হওয়ায় নিয়মিত মজুরী ও পেতো না সে। একটা সময় গিয়ে ইট ভাঙার আধুনিক যন্ত্র বের হলে তাকে আর কাজে ডাকতোনা কেউ। এর মধ্যে মা, বউ আর ২ বাচ্চা নিয়ে পড়ে চরম বিপদে। এরপর শুরু হয় তার জীবনের কঠিন সংগ্রাম। মানুষের দুয়ারে দুয়ারে ঘুরতো একটা কাজের আশায় কিন্তু প্রতিবন্ধী হওয়ায় কেউ কাজ দিত না। এক পর্যায়ে কয়েকটি ছাগল কিনে পালন শুরু করে। কিন্তু তা দিয়ে সংসার চলে না। জীবন হয়ে উঠে কঠিন থেকে কঠিনতম। এরপর সামান্য টাকা কিস্তি নিয়ে স্থানীয় ধামাইরহাট বাজারে ছোট্ট পান সিগারেটের দোকান দেয়। এক বছরের ব্যবধানে তার পরিশ্রমে দোকানের পরিসর বৃদ্ধি হতে থাকে
এ বিভাগের সর্বশেষ