০৬/০৬/২০২০ ১৯:৩৫:৪০

matrivhumiralo.com পড়ুন ও বিজ্ঞাপন দিন

প্রতি মুহূর্তের খবর

o ফেরিঘাটে আটকেপড়া মানুষদের ফিরে আসার আহ্বান : বেনজীর আহমেদ o স্বাস্থ্যবিধি মেনে ঈদের নামাজ পড়তে হবে o করোনা মোকাবিলায় মেডিক্যাল টিমসহ ১০০ সেনাসদস্য o করোনাভাইরাস প্রতিরোধে কার্যক্রম শুরু করেছে সেনাবাহিনী o করোনাভাইরাস প্রতিরোধে সেনাবাহিনীর মতবিনিময়
আপনি আছেন : প্রচ্ছদ  >  মতামত  >   শিশুসহ দুই রোহিঙ্গা নারীকে উদ্ধার করে র‌্যাব

শিশুসহ দুই রোহিঙ্গা নারীকে উদ্ধার করে র‌্যাব

পাবলিশড : ৩০/১১/২০১৭ ১৭:১৬:১৫ পিএম
 শিশুসহ দুই রোহিঙ্গা নারীকে উদ্ধার করে র‌্যাব

ঢাকা ::

বৃহস্পতিবার (৩০ নভেম্বর) দুপুরে রাজধানীর কারওয়ান বাজারে র‌্যাব মিডিয়া সেন্টারে আয়োজিত এক সংবাদ সম্মেলনে এসব তথ্য জানান র‌্যাব-১০ এর অধিনায়ক (সিও) ডিআইজি মো. শাহাবুদ্দিন খান।

 

এর আগে, ৩০ নভেম্বর গোপন সংবাদের ভিত্তিতে রাজধানীর ডেমরা মাহমুদ নগরের একটি বাসা থেকে শিশুসহ দুই রোহিঙ্গা নারীকে উদ্ধার করে র‌্যাব। 

উদ্ধারকৃতরা হলেন- সেতারা বেগম (২৫), তার কন্যা সন্তান শফিকা (৬) এবং জাহেদা বেগম (১৬)। 

এদিকে, এই রোহিঙ্গা নারীদের আশ্রয় দেয়া ও তাদের কক্সবাজার থেকে ঢাকায় নিয়ে আসার অপরাধে রাজু মোল্লা (৪৫) ও মোখলেছুর রহমান (৬৫) নামের দুই দালালকে আটক করে র‌্যাব-১০।

সংবাদ সম্মেলনে র‌্যাব-১০ এর সিও বলেন, জিজ্ঞাসাবাদে জানা যায়, মিয়ানমারে সাম্প্রতিক সহিংসতা শুরুর পর গত ৩ সেপ্টেম্বর রোহিঙ্গা নারী সেতারা ও জাহেদা অবৈধ পথে বাংলাদেশে প্রবেশ করে। সেতারা বেগমের ভাই সলিমুল্লাহ তিন বছর আগেই অবৈধভাবে মালয়েশিয়া যায়। আনুমানিক ছয় মাস পূর্বে সলিমুল্লাহ'র সঙ্গে মোবাইল ফোনে জাহেদার বিয়ে হয়। 

তিনি বলেন, বাংলাদেশে প্রবেশের পর তারা টেকনাফের সোয়ানখালীতে একটি বাসায় আশ্রয় নেয়। পরে তারা কক্সবাজারের কলাতলীতে একটি ভাড়া বাসায় ওঠে এবং স্থানীয় একটি হোটেল রান্নাবান্নার কাজ নেয়। 

তিনি বলেন, গ্রেফতার দালাল রাজু মোল্লার ভাতিজা রফিকুল ইসলাম মালয়েশিয়ায় জাহেদার স্বামী সলিমুল্লার সঙ্গে বসবাস করে। সলিমুল্লাহ'র অনুরোধে রফিক তার চাচা রাজুকে তার বোন সেতারা ও স্ত্রী জাহেদার পাসপোর্ট তৈরি করে মালয়েশিয়া পাঠাতে বলে। 

এই কারণে গত ২৫ নভেম্বর জাহেদা, সেতারা ও তার কন্যা সন্তান শফিকাকে নিয়ে দালাল রাজু ঢাকার ডেমরায় অন্য দালাল মোখলেসুরের বাসায় আশ্রয় নেয়। 

এ বিভাগের সর্বশেষ