৩০/০৫/২০২০ ১২:০৫:৩০

matrivhumiralo.com পড়ুন ও বিজ্ঞাপন দিন

প্রতি মুহূর্তের খবর

o ফেরিঘাটে আটকেপড়া মানুষদের ফিরে আসার আহ্বান : বেনজীর আহমেদ o স্বাস্থ্যবিধি মেনে ঈদের নামাজ পড়তে হবে o করোনা মোকাবিলায় মেডিক্যাল টিমসহ ১০০ সেনাসদস্য o করোনাভাইরাস প্রতিরোধে কার্যক্রম শুরু করেছে সেনাবাহিনী o করোনাভাইরাস প্রতিরোধে সেনাবাহিনীর মতবিনিময়
আপনি আছেন : প্রচ্ছদ  >  শিক্ষা  >  জাতীয় মাল্টিমিডিয়া কনটেন্ট প্রতিযোগিতা সেরা শিক্ষক হলেন আলীকদমের জয়নব

জাতীয় মাল্টিমিডিয়া কনটেন্ট প্রতিযোগিতা সেরা শিক্ষক হলেন আলীকদমের জয়নব

পাবলিশড : ২৩/০৯/২০১৭ ২১:২৮:৩০ পিএম আপডেট : ২৩/০৯/২০১৭ ২১:৩৬:৪২ পিএম
জাতীয় মাল্টিমিডিয়া কনটেন্ট প্রতিযোগিতা সেরা শিক্ষক হলেন আলীকদমের জয়নব

শিক্ষা ডেস্ক ::

জাতীয় মাল্টিমিডিয়া কনন্টেন্ট প্রতিযোগিতা (চূড়ান্ত পর্ব) ২০১৭-এ সেরা পনেরতে ৫ম স্থান পেলেন বান্দরবানের আলীকদম আদর্শ সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের সহকারি শিক্ষিকা জয়নব আরা বেগম।  গত জুলাই মাসে এ প্রতিযোগিতায় সারাদেশ থেকে বিভাগীয় পর্যায়ে সেরা ৩৫ জন শিক্ষক নির্বাচিত করেন একসেস টু ইনফরমেশন (এটুআই) কর্তৃপক্ষ। বিভাগীয় পর্যায়ে নির্বাচিত ৩৫ জন শিক্ষকদের নিয়ে গত ২২ ও ২৩ সেপ্টেম্বর দুইদিন ব্যাপী ফাইনাল রাউন্ড প্রতিযোগিতা অনুষ্ঠিত হয় ঢাকা টিচার্চ ট্রেনিং কলেজে (টিটিসি)। 

শনিবার বিকেলে ফলাফল ঘোষণা করেন প্রধানমন্ত্রী কার্যালয়ের ই-লার্নিং স্পেশালিষ্ট প্রফেসর ফারুক আহমেদ। সারাদেশের নির্বাচিত ৩৫ জন শিক্ষক থেকে বিচারকদের সিদ্ধান্তে ‘সেরা ১৫ জন’ প্রতিযোগীর ঘোষণা করা হয়। এতে ৫ম স্থান লাভ করেন আলীকদম আদর্শ সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের সহকারি শিক্ষক জয়নব আরা বেগম। মাল্টিমিডিয়া কনটেন্ট প্রতিযোগিতায় সারাদেশের প্রাথমিক, মাধ্যমিক ও কলেজের ৩৫ শিক্ষক অংশগ্রহণ করেন।

গত জুলাই মাসে ফেনী টিটিসিতে অনুষ্ঠিত চট্টগ্রাম বিভাগীয় মাল্টিমিডিয়া কনটেন্ট প্রতিযোগিতায় শিক্ষিকা জয়নব প্রথম স্থান অধিকার করেন। উল্লেখ্য, গুণি এ শিক্ষক ২০১৪ সালে এক্সেস টু ইনফরমেশন (এটুআই) থেকে সেরা শিক্ষক অ্যাওয়ার্ড লাভ করেন। ব্রিটিশ কাউন্সিলের কাউন্সিলের সহযোগিতায় বৈশ্বিক শিখনের ওপর ২০১৫ সালে ল-নের স্কটস্ প্রাইমারী স্কুল ভিজিট করেন। ২০১৭ সালে প্রাথমিক ও গণশিক্ষা মন্ত্রণালয়ের উদ্যোগে স্টাডি ট্যুরে মালয়েশিয়া ভ্রমণ করেন। 

জানতে চাইলে জয়নব আরা বেগম বলেন, নানা প্রতিকুলতা সত্ত্বেও আমি প্রাইমারী বিদ্যালয় থেকে সেরা পনের-এ স্থান পাওয়ায় আনন্দিত। আমার এ অর্জনের পেছনে আমার সহকর্মী ও প্রধান শিক্ষক এবং আমার পরিবারের আন্তরিকতা ও ভালোবাসা রয়েছে

এ বিভাগের সর্বশেষ