০৬/০৬/২০২০ ০৮:৩৪:০৮

matrivhumiralo.com পড়ুন ও বিজ্ঞাপন দিন

প্রতি মুহূর্তের খবর

o ফেরিঘাটে আটকেপড়া মানুষদের ফিরে আসার আহ্বান : বেনজীর আহমেদ o স্বাস্থ্যবিধি মেনে ঈদের নামাজ পড়তে হবে o করোনা মোকাবিলায় মেডিক্যাল টিমসহ ১০০ সেনাসদস্য o করোনাভাইরাস প্রতিরোধে কার্যক্রম শুরু করেছে সেনাবাহিনী o করোনাভাইরাস প্রতিরোধে সেনাবাহিনীর মতবিনিময়
আপনি আছেন : প্রচ্ছদ  >  শিক্ষা  >  নতুন প্রজন্মের ছেলেমেয়েদের সাধারণ জ্ঞান অনেক -শিক্ষামন্ত্রী নুরুল ইসলাম নাহিদ

নতুন প্রজন্মের ছেলেমেয়েদের সাধারণ জ্ঞান অনেক -শিক্ষামন্ত্রী নুরুল ইসলাম নাহিদ

পাবলিশড : ২২/০৭/২০১৭ ১২:১৭:৫৫ পিএম আপডেট : ২২/০৭/২০১৭ ১৪:২২:৪১ পিএম
নতুন প্রজন্মের ছেলেমেয়েদের সাধারণ জ্ঞান অনেক -শিক্ষামন্ত্রী নুরুল ইসলাম নাহিদ

মাতৃভূমির আলো ডেস্ক ::

ঢাকা রিপোর্টার্স ইউনিটি (ডিআরইউ) সদস্য সন্তানদের প্রাইমারি এডুকেশন কমপ্লিশন (পিইসি) ও জুনিয়র স্কুল সার্টিফিকেট (জেএসসি) পরীক্ষায় উর্ত্তীণ ৪৬ জন কৃতী শিক্ষার্থীকে সংবর্ধনা এবং বৃত্তি প্রদান করেছে।

শুক্রবার (২১ জুলাই) বিকেলে সংগঠনের সাগর-রুনী মিলনায়তনে আয়োজিত এই অনুষ্ঠানে শিক্ষামন্ত্রী নুরুল ইসলাম নাহিদ কৃতী শিক্ষার্থীদের হাতে সন্মাননা পত্র, ক্রেস্ট, বই ও নগদ অর্থ বৃত্তি হিসেবে তুলে দেন।

অনুষ্ঠানে ২০১৬ সালে পাস করা পিইসি’র ২৮ জন এবং জেএসসি’র ১৮ জনসহ মোট ৪৬ জন কৃতী শিক্ষার্থীকে পুরস্কার তুলে দেওয়া হয়।

ডিআরইউ সভাপতি সাখাওয়াত হোসেন বাদশার সভাপতিত্বে ও সাধারণ সম্পাদক মুরসালিন নোমানীর সঞ্চালনায় অনুষ্ঠানে অন্যান্যের মধ্যে সংগঠনের সহ-সভাপতি ও অনুষ্ঠান উদযাপন কমিটির আহ্বায়ক আবু দারদা যোবায়ের, ঢাকা সাংবাদিক ইউনিয়নের সভাপতি ও অভিভাবক শাবান মাহমুদ, অভিভাবকদের পক্ষে সিনিয়র সাংবাদিক শাহ নেওয়াজ দুলাল, দৈনিক নয়াদিগন্তের চিফ রিপোর্টার হারুন জামিল, আরটিভির সুরাইয়া মুন্নী ও সাবিনা ইয়াসমিন, সংবর্ধিতদের মধ্যে সাবরিনা নুজহাত প্রমুখ বক্তব্য রাখেন।

অনুষ্ঠানে শিক্ষামন্ত্রী নুরুল ইসলাম নাহিদ বলেন, নতুন প্রজন্মকে ভবিষ্যতে নেতৃত্ব দেওয়ার মতো দক্ষ ও যোগ্য নাগরিক হিসেবে গড়ে তুলতে হবে। নৈতিক মূল্যবোধ সম্পন্ন মানুষ হিসেবে তাদেরকে গড়ে তুলতে হবে।

শিক্ষামন্ত্রী বলেন, আমাদের নতুন প্রজন্মের ছেলেমেয়েদের সাধারণ জ্ঞান অনেক। তারা বিশ্বমানের মেধার অধিকারী। আজকের জগৎ উন্মুক্ত, তাই বিশ্বমানের শিক্ষা অর্জন করলে তারা বিশ্বের যেকোন স্থানে প্রতিযোগিতায় টিকে থাকতে পারবে।

তিনি আরও বলেন, চলতি অর্থবছরে ১৯,৫০০ নতুন মাধ্যমিক বিদ্যালয় ভবন নির্মাণ করা হবে।

ডিআরইউ সভাপতি সাখাওয়াত হোসেন বাদশা বলেন, আমাদের সন্তানদের আরও উন্নত শিক্ষায় উৎসাহিত করার জন্য ডিআরইউ এ ধরনের কার্যক্রম পরিচালনা করে আসছে। ভবিষ্যতেও তা অব্যাহত থাকবে।

অনুষ্ঠানে ডিআরইউর যুগ্ম সম্পাদক তোফাজ্জল হোসেন, অর্থ সম্পাদক মানিক মুনতাসির, সাংগঠনিক সম্পাদক জিলানী মিলটন, দপ্তর সম্পাদক নয়ন মুরাদ, প্রশিক্ষণ ও গবেষণা সম্পাদক শেখ মাহমুদ এ রিয়াত, ক্রীড়া সম্পাদক মো. মজিবুর রহমান, সাংস্কৃতিক সম্পাদক মিজান চৌধুরী, আপ্যায়ন সম্পাদক কামাল উদ্দিন সুমন, কার্যনির্বাহী সদস্য নূরুল ইসলাম হাসিব, সাইফুল ইসলাম, সাখাওয়াত হোসেন সুমন ও মাইনুল হাসান সোহেল উপস্থিত ছিলেন।

ডিআরইউ’র সদস্য সন্তানদের মধ্যে জেএসসি পরীক্ষায় উত্তীর্ণ কৃতী শিক্ষার্থীরা হলো- শাহ মো. মনোয়ার জাহান কবিরের মেয়ে মালিহা মরিয়াম এশা, তারিক আল বান্নার ছেলে শেখ রফিক বিন তরিক, মাইনুল আলমের ছেলে সাবরিনা নুজহাত, মিজানুর রহমানের ছেলে আরাফাত রহমান, শাহদাত হোসেন নিজামের ছেলে আবির শাহদাত পুরব, কাওসার হোসেন খন্দকারের মেয়ে কানতা মেহজাবীন, মাহমুদ হাসানের ছেলে মাফি মাফরুহিন হাসান, মো. শহিদুল আলমের ছেলে সায়মা খাতুন, জিয়াউদ্দিন ভূঁঞার ছেলে আনিকা বুশরা, সুরাইয়া মুন্নির মেয়ে সিনথিয়া অপশরা, রায়হান আল মুঘনির মেয়ে মুমতাহিনা সাম্য, মো. বদিউজ্জামানের ছেলে এম মহিউজ্জামান শাওন, নাজমুল আহমেদ তৌফিকের মেয়ে রাফিজা তৌফিক রাকা, নাঈমুল করিমের ছেলে জুলকার নাইন করিম, মো. রেজাউর রহিমের ছেলে মুহসিন রেজা, এইচ এম জামাল উদ্দিনের মেয়ে অশিন বিনতে জামাল, কাজী হাফিজুর রহমানের ছেলে কাজী আসিফুর রহমান ও এস এম জাহাঙ্গীরের ছেলে ইনতিসার আহমেদ।

পিইসি পরীক্ষায় উত্তীর্ণ কৃতি শিক্ষার্থীরা হলো- মো. শফিকুল ইসলামের ছেলে সাদিয়া ইসলাম শিফা, মো. কামাল হোসেন তালুকদারের ছেলে মিনহাজ তালুকদার, মিনহাজুর রহমানের মেয়ে জান্নাতুল মাওয়া জিনিয়া, মো. নাজমুল হক তপনের মেয়ে ফিকাহ্ ফেরদৌস সঞ্চারি, মো. মহসিন হোসেনের ছেলে সাইফুল্লাহ সিফাত, মো. বদরুল আলম চৌধুরীর মেয়ে আবিদা আলম, মো. জিয়াউদ্দিন ভূঁঞার ছেলে ফাহিম বখতিয়ার, মো. ফজলুল হকের মেয়ে নূর ইয়াদ তারান্নুম স্বপ্নীল, শাহনেওয়াজ দুলালের ছেলে রায়ান নেওয়াজ, মো. সাব্বির হোসেনের ছেলে আহমেদ হোসেন নাসিফ, কে. এম. আলফাজ আনমের মেয়ে আানিকা নাওয়ার, মো. হারুনুর রশীদের মেয়ে মুমতাহিনা মেহরীন নুহা, লুৎফর রহমানের মেয়ে জাফিরা বিনতে রহমান, মোহাম্মদ জয়ানাল আবেদীনের ছেলে মোহাম্মদ মিশকাত আবেদীন, সাগর বিশ্বাসের ছেলে সাগ্নিক বিশ্বাস, মনিরুজ্জ্বামান উজ্জলের ছেলে সাদমান সাকিবুজ্জামান তাহসীন, সালাহউদ্দীন আহমাদ বাবলুর মেয়ে লামিয়া মেহরীন, এম এম কায়সারের ছেলে তেহজিব কায়সার, মো. আমিনুল ইসলামের মেয়ে তাইয়্যেবা ইসলাম তাবাসসুম, মো. আমিনুল ইসলামের ছেলে আরিয়ান মির্জা, বিকাশ নারায়ন দত্তের ছেলে বিস্ময় অর্ঘ্য দত্ত, মেহেদী হাসান পলাশের ছেলে হাসান শাহের পলক, মো. আনোয়ারুল হকের ছেলে অনন্য আজিজ নিবিড়, শাবান মাহমুদের ছেলে রোদ্দুর মাহমুদ, শাহেদ সিদ্দিকীর ছেলে ফারহান তানভীর সিদ্দিকী, মরহুম ওমর ফারুকের মেয়ে দিপিকা ওমর দিয়া, কাজী ইমরুল কবীর সুমনের মেয়ে কাজী আদিবা ফাতিমা ও মশিউর রহমানের ছেলে নাজিম মোহাম্মদ।

এ বিভাগের সর্বশেষ